পাড়ায় শিক্ষালয় – ছাত্রছাত্রীদের জন্য নতুন প্রকল্প | Paray Shikshalaya

পাড়ায় শিক্ষালয় (Paray Shikshalaya) হল করোনা পরিস্থিতিতে ছাত্রছাত্রীদের কাছে স্কুলের আমেজ পৌঁছে দেওয়ার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এক নতুন কর্মসূচি।

আগেই দুয়ারে সরকার, পাড়ায় সমাধান, দুয়ারে রেশন ইত্যাদি প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন সরকারি পরিষেবা রাজ্য সরকার জনসাধারণের বাড়ির দোরগোড়ায় পৌঁছে দিয়েছে। এবার শিক্ষাকেও শিক্ষার্থীদের হাতের নাগালে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ নামক এই নয়া উদ্যোগ নিল রাজ্য।

করোনা অতিমারীর (COVID-19) কারণে প্রায় দু’বছর ধরে বিদ্যালয়ে পঠন-পাঠন বন্ধ। বিশেষত প্রাক-প্রাথমিক থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত একদিনও ক্লাস হয়নি। এমন আবহে চার দেওয়ালে বন্দী ক্লাসরুমে পড়াশোনা করা ঝুঁকিুপূর্ণ বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই এমন উদ্যোগ।

পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচির তারিখ

২৪-০১-২০২২ তারিখ সোমবার এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু। ০৭-০২-২০২২ থেকে ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ কর্মসূচি আরম্ভ হবে।

পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচির উদ্দেশ্য

১) ঘরবন্দি পড়ুয়াদের কাছে বিদ্যালয়ের পরিবেশ এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষা পৌঁছে দেওয়া।

২) অনেক বিদ্যালয়ে অনলাইন ক্লাস চালু থাকলেও বহু পড়ুয়াই অনলাইন ক্লাসের সুবিধা পাচ্ছেন না। দুর্বল ইন্টারনেট পরিষেবা বা আর্থিক অনটনের জন্য তারা এই ক্লাস করতে পারছেন না। তাই ‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ এই সমস্ত ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিশেষভাবে উপযোগী।

৩) শিশুদের মনোসামাজিক সহায়তা এবং সামাজিক আবেগজনিত শিক্ষা প্রদান করা।

৪) স্বাস্থ্য ও পারিপার্শ্বিক পরিচ্ছন্নতা বৃদ্ধি, ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতার দিক লক্ষ্য রাখা।

৫) পড়া, লেখা, প্রাথমিক স্তরে গণিত চর্চা এবং সংখ্যা সংক্রান্ত দক্ষতা বৃদ্ধি করা।

৬) সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড (যেমন নাচ, গান, আবৃত্তি ইত্যাদি) বিষেশভাবে শেখানো।

৭) শিল্প ও নৈপুণ্যের দক্ষতা বৃদ্ধি করা।

৮) আউটডোর এবং ইনডোর খেলাধুলা সংক্রান্ত কার্যক্রম দেখানো।

পাড়ায় শিক্ষালয় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী

সরকারি ও সরকার পোষিত প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং শিশু শিক্ষাকেন্দ্র, মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক/শিক্ষিকা, পার্শ্ব শিক্ষক/শিক্ষিকা, শিক্ষা সহায়ক/সহায়িকা এই উদ্যোগে সামিল হবেন।

প্রাথমিক বিদ্যালয়প্রায় ৫০,১৫৯ টি
শিশু শিক্ষাকেন্দ্রপ্রায় ১৫,৫৯৯ টি
শিক্ষক/শিক্ষিকাপ্রায় ১.৮৪ লক্ষ জন
পার্শ্ব শিক্ষক/শিক্ষিকাপ্রায় ২১,০০০ জন
শিক্ষা সহায়ক/সহায়িকাপ্রায় ৩৮,০০০ জন
ছাত্রছাত্রীপ্রায় ৬০,৫২,৬৮২ জন

পাড়ায় শিক্ষালয়ে কখন কোথায় পড়ানো হবে?

প্রাক-প্রাথমিক থেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রছাত্রীদের জন্য এই কর্মসূচী। কোভিড বিধি মেনে, স্কুলের অন্দরে নয়, পার্ক-খোলা মাঠ কিংবা পাড়ার অন্য কোনও খোলামেলা জায়গায় যেখানে কোভিডের সংক্রমণের সম্ভাবনা কম এমন জায়গায় পড়ানো হবে। যাতে প্রাথমিক শিক্ষা বা পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য দূরে দূরে না ছুটতে হয়।

স্কুলের দিনগুলিতে (শনিবার বাদে) যে সময়ে স্কুল চলে সেই সময়েই শিক্ষক, পার্শ্ব শিক্ষক বা শিক্ষা সহায়কেরা ক্লাস নেবেন।

‘পাড়ায় শিক্ষালয়’ -এ পঞ্চম থেকে অষ্টম শ্রেণির রুটিন

শেণিবার
পঞ্চমসোমবার, বুধবার
ষষ্ঠমঙ্গলবার, শুক্রবার
সপ্তমসোমবার, বৃহস্পতিবার
  • সোমবার থেকে শুক্রবার প্রতিদিন বেলা ১১ টা থেকে বিকাল ৩.৩০ মিনিট পর্যন্ত শিক্ষালয় হবে।
  • প্রতিটি সেশন হবে ২ ঘন্টার।
  • শনিবার পাড়ার শিক্ষালয় বন্ধ থাকবে।

একনজরে পাড়ায় শিক্ষালয় প্রকল্প

প্রকল্পের নামপাড়ায় শিক্ষালয়
কর্তৃপক্ষবিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার
অংশগ্রহণকারীপ্রাক-প্রাথমিক থেকে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রছাত্রী
প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং শিশু শিক্ষাকেন্দ্র, মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষক/শিক্ষিকা, পার্শ্ব শিক্ষক/শিক্ষিকা,
শিশু শিক্ষাকেন্দ্রের শিক্ষা সহায়ক/সহায়িকা
সুবিধাকোভিড পরিস্থিতিতে শিশুদের লেখাপড়ার অভ্যাস
উদ্বোধনের তারিখ২৪-০১-২০২২
আরম্ভ হওয়ার তারিখ ০৭-০২-২০২২
বন্ধ হওয়ার তারিখ১৬-০২-২০২২
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট****
১) পাড়ায় শিক্ষালয় কবে থেকে আরম্ভ হবে?

০৭-০২-২০২২ থেকে।

২) পাড়ার শিক্ষালয়ে কোন্‌ কোন্‌ শ্রেণির ক্লাস হবে?

প্রাক-প্রাথমিক থেকে সপ্তম শ্রেণির

৩) পাড়ার শিক্ষালয়ে কে ক্লাস নেবেন?

সরকারি ও সরকার পোষিত প্রাথমিক বিদ্যালয়, মাধ্যমিক বিদ্যালয়, উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং শিশু শিক্ষাকেন্দ্র, মাধ্যমিক শিক্ষাকেন্দ্রের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক/শিক্ষিকা, পার্শ্ব শিক্ষক/শিক্ষিকা, শিক্ষা সহায়ক/সহায়িকা

আরও পড়ুন

তথ্যসূত্র – https://www.sangbadpratidin.in/kolkata/wb-govt-to-start-paray-sikhalaya-for-students/

Leave a Reply

Your email address will not be published.