প্রগতি স্কলারশিপ ২০২২ | Pragati Scholarship 2022 in Bengali

প্রগতি স্কলারশিপ ২০২২ (Pragati Scholarship 2022) – আবেদনের যোগ্যতা, আবেদন পদ্ধতি, প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ইত্যাদি বিষয়ে লেখা হয়েছে।

প্রগতি স্কলারশিপ হল প্রযুক্তিগত শিক্ষা (Technical Education) লাভ করার জন্য AICTE (All India Council for Technical Education) –এর উদ্দোগে ছাত্রীদের আর্থিক সহায়তা দানের জন্য একটি স্কলারশিপ।

প্রযুক্তিগত শিক্ষার ক্ষেত্রে ডিপ্লোমা এবং ডিগ্রি – এই দুটি স্তরে পাঠরতা ছাত্রীরা প্রগতি স্কলারশিপ পাওয়ার জন্য আবেদন করতে পারে।

প্রগতি স্কলারশিপ  – আবেদনের যোগ্যতা

  • ছাত্রীকে AICTE অনুমোদিত কোনো প্রতিষ্ঠানে প্রযুক্তিগত শিক্ষার ডিপ্লোমা / ডিগ্রি স্তরের প্রথম বর্ষে বা ল্যাটারেল এন্ট্রির মাধ্যমে দ্বিতীয় বর্ষে ভর্তি হতে হবে।
  • কোয়ালিফায়িং পরীক্ষা পাশ করার ২ বছরের মধ্যে ডিপ্লোমা / ডিগ্রি কোর্সে ভর্তি হতে হবে।
  • প্রতি পরিবারের সর্বোচ্চ ২ জন মেয়ে আবেদন যোগ্য হবে।
  • সর্বোচ্চ আয় – সমস্ত উৎস থেকে বার্ষিক পারিবারিক আয় ৮ লক্ষ টাকার বেশি যেন না হয়।
  • রাজ্য বা কেন্দ্র সরকারের অন্য কোনো স্কলারশিপ যেমন – সক্ষম স্কলারশিপ (Saksham Scholarships), PMSSS (Prime Minister’s Special Scholarship Scheme) ইত্যাদি পেয়ে থাকলেও এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে না।  

প্রগতি স্কলারশিপের পরিমান

কোর্সপরিমান (প্রতি বছর)সর্বোচ্চ স্থায়ীত্ব
টেকনিক্যাল ডিপ্লোমা৫০,০০০ টাকাপ্রথম বর্ষের জন্য ৩ বছর
দ্বিতীয় বর্ষের জন্য ২ বছর
টেকনিক্যাল ডিগ্রি৫০,০০০ টাকাপ্রথম বর্ষের জন্য ৪ বছর
দ্বিতীয় বর্ষের জন্য ৩ বছর
প্রগতি স্কলারশিপ

প্রগতি স্কলারশিপ কত জনকে দেওয়া হয়?

প্রতি বছর সারা ভারতে টেকনিক্যাল ডিপ্লোমা কোর্সের ৫,০০০ জন (প্রতি রাজ্য থেকে সর্বনিম্ন ৫০ জন এবং সর্বোচ্চ ৭০০ জন) এবং  টেকনিক্যাল ডিগ্রি কোর্সের ৫,০০০ জন (প্রতি রাজ্য থেকে কমপক্ষে ৫০ জন এবং সর্বোচ্চ ৮০০ জন) অর্থাৎ মোট ১০,০০০ জনকে প্রগতি স্কলারশিপ দেওয়া হয়।

রাজ্য ভিত্তিক স্কলারশিপের সংখ্যা

রাজ্য / UTটেকনিক্যাল ডিপ্লোমা কোর্সটেকনিক্যাল ডিগ্রি কোর্স
অন্ধ্র প্রদেশ৩১৮৫৬৬
বিহার৮৪৫২
চন্ডীগড়৫০৫০
ছত্রিশগড়৬২৬২
দিল্লী৫০৫০
গোয়া৫০৫০
গুজরাট২৮৪২১৯
হরিয়ানা১৯১১৩৪
হিমাচল প্রদেশ৫০৫০
ঝাড়খন্ড৬৭৫০
কর্ণাটক৩৬৫৩৯৮
কেরালা১০৯১৯৬
মধ্য প্রদেশ১৯২২৮৫
মাহারাষ্ট্র৬২৪৫৫৩
ওড়িশ্যা২০৫১৩৪
পন্ডীচেরী৫০৫০
পাঞ্জাব২০৮১২৪
রাজস্থান১৭০১৫২
তামিলনাড়ু৭০০৮০০
তেলেঙ্গানা২০৬৪২৪
উত্তর প্রদেশ৭০০৪২২
উত্তরাখন্ড৮১৫০
পশ্চিমবঙ্গ১৮৪১২৯
মোট৫,০০০৫,০০০

কোনো একটিতে ৫০০০ জন পাওয়া না গেলে তার বাকিটা অন্য স্তর থেকে নেওয়া হয়।   

এছাড়াও আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ (UT), জম্মু ও কাশ্মীর (UT), লাদাখ (UT), দাদরা এবং নগর হাভেলি ও দমন এবং দিউ (UT), লাক্ষাদ্বীপ (UT), অরুণাচল প্রদেশ, আসাম, মনিপুর, মেঘালয়, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, সিকিম, ত্রিপুরা থেকে যতজন যোগ্য ছাত্রী আবেদন করে ততজনকেই এই স্কলারশিপ দেওয়া হয়।

সংরক্ষণ

ভারত সরকারের নিয়ম অনুসারে। SC – ১৫%, ৭.৫% for ST – ৭.৫% এবং OBC – ২৭%। যদি কোনো সংরক্ষিত ক্যাটাগরির (SC/ ST/ OBC) ছাত্রী না পাওয়া যায় তবে তা জেনারেল ক্যাটাগরিতে পরিবর্তিত হয়।

স্কলারশিপ নির্বাচনের পদ্ধতি

  • যে পরীক্ষার ফলাফলের উপর ভিত্তি করে ছাত্রীরা টেকনিক্যাল ডিপ্লোমা বা ডিগ্রি কোর্সে ভর্তি হয়, তার নম্বরের ভিত্তিতে মেরিট লিস্ট তৈরি করা হয়।
  • টেকনিক্যাল ডিপ্লোমা কোর্সের ক্ষেত্রে ভিত্তি হল মাধ্যমিক (১০) বা সমতুল্য পরীক্ষার নম্বর। যদি দুজনের নম্বর একই হয় তবে প্রথমে বয়স দেখা হয়। বেশি বয়সের ছাত্রীকে আগে প্রাধান্য দেওয়া হয়। নম্বর ও বয়সের ভিত্তিতে একই র‍্যাঙ্ক হলে যার ক্ষেত্রে পারিবারিক আয় কম তাকে আগে স্কলারশিপের জন্য প্রাধান্য দেওয়া হয়।
  • টেকনিক্যাল ডিগ্রি কোর্সের ক্ষেত্রে ভিত্তি হল উচ্চ-মাধ্যমিক (১০+২) বা সমতুল্য পরীক্ষার নম্বর। যদি দুজনের নম্বর একই হয় তবে প্রথমে মাধ্যমিক বা সমতুল্য পরীক্ষার নম্বর দেখা হয়। যার নম্বর বেশি তাকে তালিকাতে আগে স্থান দেওয়া হয়। যদি দুটি পদ্ধতিতেও নির্বাচন করা সম্ভব না হয় তবে বয়স দেখা হয়। বেশি বয়সের ছাত্রীকে আগে প্রাধান্য দেওয়া হয়।

প্রগতি স্কলারশিপ ২০২২ আবেদনের শেষ তারিখ

প্রগতি স্কলারশিপ ২০২২ এর আবেদন আরম্ভ হয়ে গেছে। আবেদনের শেষ তারিখ ৩১-১০-২০২২

আবেদন পদ্ধতি

এই স্কলারশিপের জন্য ন্যাশন্যাল স্কলারশিপ পোর্টাল (National Scholarship Portal) এর মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হয়।

আবেদনের সময় কী কী কাগজপত্র আপলোড করতে হবে?

  • মাধ্যমিক বা সমতুল্য সার্টিফিকেট।
  • উচ্চ-মাধ্যমিক বা সমতুল্য সার্টিফিকেট (ডিগ্রি স্তরের জন্য)।
  • ITI সার্টিফিকেট (ডিপ্লোমা স্তরে ল্যাটারেল এন্ট্রির মাধ্যমে দ্বিতীয় বর্ষে ভর্তির ক্ষেত্রে)।
  • ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট (ডিগ্রি স্তরে ল্যাটারেল এন্ট্রির মাধ্যমে দ্বিতীয় বর্ষে ভর্তির ক্ষেত্রে)।
  • ছাত্রীর ব্যাঙ্ক পাশবুকের প্রথম পৃষ্ঠা।
  • ST/SC/OBC এর ক্ষেত্রে জাতিগত শংসাপত্র।
  • আধার কার্ড।
  • স্টাডি সার্টিফিকেট (Appendix-I)।
  • পারিবারিক ইনকাম সার্টিফিকেট (Appendix-II)।
  • পিতা-মাতার ঘোষণা পত্র (Appendix-III)।
  • ব্যাঙ্ক ম্যান্ডেট ফর্ম (Appendix-IV)।

স্কলারশিপ রিনিউয়াল

  • প্রতি বছর National Scholarship Portal এর মাধ্যমে অনলাইনে রিনিউয়াল করতে হয়। রিনিউয়ালের সময় মার্কশীট এবং প্রতিষ্ঠানের প্রধানের চিঠি আপলোড করতে হয়।
  • কোনো ছাত্রী পরবর্তী শ্রেণি / স্তরে প্রমোটেড না হলে স্কলারশিপ বন্ধ হয়ে যায়।

একনজরে প্রগতি স্কলারশিপ ২০২২

স্কলারশিপের নাম প্রগতি স্কলারশিপ
বর্ষ২০২২
আবেদন আরম্ভআরম্ভ হয়ে গেছে
আবেদন শেষ৩১-১০-২০২২
স্কলারশিপের পরিমানবার্ষিক ৫০,০০০ টাকা
আবেদনকারী টেকনিক্যাল ডিপ্লোমা এবং ডিগ্রি স্তরের পাঠরত ছাত্রী
অফিসিয়াল ওয়েবসাইটhttps://scholarships.gov.in/

আরও পড়ুন –

নবান্ন স্কলারশিপ ২০২২ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ ২০২২

Leave a Reply

Your email address will not be published.