উৎসশ্রী প্রকল্প ২০২১ | Utsashree Scheme in Bengali

উৎসশ্রী প্রকল্প ২০২১ (Utsoshree Scheme in Bengali) হল সরকার পোষিত ও সাহায্যপ্রাপ্ত প্রাথমিক (Primary) / উচ্চ-প্রাথমিক (Upper Primary /  মাধ্যমিক (Secondary) / উচ্চ-মাধ্যমিক (Higher Secondary) বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মীদের সাধারণ বদলির (General Transfer) জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের একটি প্রকল্প।

এই প্রকল্প বা উৎসশ্রী পোর্টালের মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মীরা নিজেরা কিছু শর্ত সাপেক্ষে অনলাইনে বদলির জন্য আবেদন করতে পারবেন।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মীদের সাধারণ বদলির আবেদন উৎসশ্রী পোর্টালের মাধ্যমে হবে যা দেখাশোনা করে বিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তর (School Education Department)

Utsashree

কোন কোন ক্ষেত্রে উৎসশ্রী প্রকল্প –এর মাধ্যমে  বদলির জন্য আবেদন করা যাবে?

  • ১) নিজের বা পরিবারে অন্য সদস্যের (যেমন – পুত্র, কন্যা বা স্পাউস) কোনো ঘোরতর অসুখ, হৃৎপিন্ডের রোগ, থ্যালাসেমিয়া, অঙ্গ প্রতিস্থাপন ইত্যাদি হলে। (Medical Reason Self/Others)
  • ২) ৪০% বা আরও বেশি PH ক্যাটাগরি (Physical Handicapped)
  • ৩) শিক্ষিকাদের ক্ষেত্রে ১০ বছরের কম বয়সি বাচ্চা বা ডিভোর্স বা স্বামী মারা যাওয়ার কারণে বিদ্যালয়ে যোগ দিতে অসুবিধা (Female Teacher Transfer Ground)
  • ৪) নিজের জেলাতে বদলিতে ইচ্ছুক ৫৭ বছর বা তারও বেশি বয়স্ক শিক্ষক/শিক্ষিকা/শিক্ষাকর্মী (Teacher of Age 57 and More and Willing for Home District Posting)
  • ৫) অন্যান্য উপযুক্ত কারণ (Any Other Reason)

উৎসশ্রী প্রকল্প –এর মাধ্যমে আবেদন করার যোগ্যতা

  • ১) আবেদনকারির চাকুরি নিশ্চিত (Confirmed) হতে হবে।
  • ২) শিক্ষক-শিক্ষিকা বা শিক্ষাকর্মীকে বর্তমান বিদ্যালয়ের বর্তমান পোস্টে (Present School and Present Post) অন্ততপক্ষে ৫ বছর চাকরি করতে হবে।
  • ৩) প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে বর্তমান বিদ্যালয়ের সার্কেলের মধ্যে এবং সেকেন্ডারি সেকশানের ক্ষেত্রে বর্তমান বিদ্যালয়ের ২৫ কিলোমিটারের মধ্যে আবেদন করা যাবে না।
  • ৪) শেষ ট্রান্সফারের ৫ বছরের (যোগদানের দিন থেকে) মধ্যে আবেদন করা যাবে না।
  • ৫) বদলির অর্ডার প্রত্যাখ্যান করেছেন শিক্ষক-শিক্ষিকা বা শিক্ষাকর্মীরা অর্ডার প্রত্যাখ্যানের তারিখ থেকে  ৭ বছরের মধ্যে আবেদন করতে পারবে না।
  • ৬) বয়স ৫৯ বছরের কম হতে হবে। বয়স ৫৯ বছরের বেশি হলে আবেদন করা যাবে না।
  • ৭) কোনো সাসপেনশান বা ডিসিপ্লিনারি প্রসিডিং বা জুডিশিয়াল প্রসিডিং বা ফিনানশিয়াল ইরেগুলারিটি থাকলেও উৎসশ্রী প্রকল্পে আবেদনের অযোগ্য।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক/শিক্ষিকা (HM) শুধুমাত্র প্রধান শিক্ষক/শিক্ষিকা (HM) পোস্টের জন্য এবং সহকারি প্রধান শিক্ষক/শিক্ষিকা (AHM) ও টিচার-ইন-চার্জ (TIC) শুধুমাত্র অ্যাসিস্টেন্ট টিচার (AT) পোস্টের জন্য সাধারণ বদলির আবেদন করতে পারবে।

কি কি নথিপত্র আবেদনের সময় আপলোড করতে হবে?

  • বদলির জন্য আবেদনের কারণের প্রমাণপত্র।
    • অসুস্থতার কারণ সম্বন্ধীয় সার্টিফিকেট  
    • PH সার্টিফিকেট
    • ছেলেমেয়ের জন্ম সার্টিফিকেট (মহিলাদের ক্ষেত্রে যদি প্রযোজ্য হয়)
  • দূরত্বের সার্টিফিকেট
    • স্থায়ী ঠিকানা ও কর্মরত বিদ্যালয়ের মধ্যবর্তী দূরত্বের।
    • স্বামী-স্ত্রীর কর্মস্থলের মধ্যবর্তী দূরত্বের, যদি প্রযোজ্য হয়।
  • পূর্ববর্তী ট্রান্সফার সার্টিফিকেট, যদি থাকে।

প্রতিটি নথি jpeg / pdf ফর্মাটে এবং সাইজ ২০০ KB এর মধ্যে হতে হবে।

বিভিন্ন লেভেলে আবেদনপত্র পেন্ডিং থাকার সময়সীমা

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে

লেভেলসর্বোচ্চ সময় সীমা
SI১৪ দিন
DPSC১৪ দিন
WBBPE৭ দিন

মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে

লেভেলসর্বোচ্চ সময় সীমা
HOI১৪ দিন
DI১৪ দিন
WBSSC২১ দিন
WBBSE১ দিন

আবেদন করার সময় ভুল করলে তা সংশোধনের উপায়

আবেদনকারী / আবেদনকারিণী SI (প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে) বা HOI (মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে) কে আবেদনপত্রটি Send Back করার জন্য আবেদন করবেন। আবেদনপত্রটি Send Back হওয়ার পর আবার তা সংশোধন করে সাবমিট করতে হবে।

সাধারণ বদলির আবেদনের ক্ষেত্রে পছন্দের তিনটি বিদ্যালয় না পাওয়া গেলে কী হবে?

প্রথম চারটি গ্রাউন্ডে আবেদনের ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষ আবেদনকারী / আবেদনকারিণীর পছন্দের বিদ্যালয়ের কাছাকাছি কোনো বিদ্যালয়ে শূন্যপদ থাকলে তাতে দেওয়ার চেষ্টা করবে।

তবে “অন্যান্য উপযুক্ত কারণ (Any Other Reason)” গ্রাউন্ডে আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদন বাতিল হবে।

এক নজরে উৎসশ্রী প্রকল্প

স্কিমের নামউৎসশ্রী প্রকল্প
ঘোষণাকারী কর্তৃপক্ষবিদ্যালয় শিক্ষা দপ্তর, পশ্চিমবঙ্গ সরকার
সুবিধাভোগীসরকার পোষিত ও সাহায্যপ্রাপ্ত প্রাথমিক / উচ্চ-প্রাথমিক /  মাধ্যমিক / উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষিকা ও শিক্ষাকর্মী
উদ্দেশ্যঅনলাইন বদলির আবেদন
উদ্বোধনের তারিখ৩১-০৭-২০২১
আবেদন আরম্ভের তারিখ০২-০৮-২০২১
অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://banglarshiksha.gov.in/utsashree

FAQ

উৎসশ্রী পোর্টালে আবেদন কবে থেকে আরম্ভ হবে?

০২-০৮-২০২১

আবেদনের জন্য কি NOC প্রয়োজন ?

না।
তবে, তবে প্রাথমিক / উচ্চ-প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে SI এর NOC প্রয়োজন।

দূরত্বের সার্টিফিকেট কোথায় পাওয়া যাবে?

সাধারণত RTO অফিস থেকে নিতে হয়।
তবে গুগুল ম্যাপের স্ক্রীনশট নিলেও হবে। এটি হল সর্বোত্তম উপায়।

HOI কতজন শিক্ষক-শিক্ষিকার আবেদন ফরওয়ার্ড করবেন এবং কিভাবে?

মোট শিক্ষক-শিক্ষিকা সংখ্যার সর্বোচ্চ ১০% আবেদন ফরওয়ার্ড করতে পারবেন। ১০% নির্বাচনের ক্ষেত্রে শিক্ষক-শিক্ষিকার বয়সকে প্রাধান্য দেওয়া হবে।

কোনো একটি নির্দিষ্ট বিষয়ের সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষিকা বদলির জন্য আবেদন করলে কী হবে?

উত্তর – বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিষয় শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা এবং ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা বিবেচনা করবেন। যদি বদলির ফলে ঐ বিষয়ে শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা শূণ্য হয়ে যায় বা ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হয়, তবে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আবেদন ফরওয়ার্ড নাও করতে পারে। ফরওয়ার্ড করলেও SSC লেভেল তা রিজেক্ট করবে।

কোন কোন ক্ষেত্রে ১০% এর নিয়ম এবং বিষয় শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা শূন্য বা ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হওয়া – এই নিয়মগুলি প্রযোজ্য হবে?

শুধুমাত্র “অন্যান্য উপযুক্ত কারণ (Any Other Reason)” গ্রাউন্ডে আবেদনের ক্ষেত্রে এই নিয়ম মানা হবে।

অ-শিক্ষক কর্মীরা কি ১০% নর্মের মধ্যে পড়বে?

না।

উৎসশ্রী প্রকল্পে মেডিকেল গ্রাউন্ডে আবেদনের জন্য কোন কোন রোগগুলি প্রযোজ্য?

ঘোরতর অসুখ, তীব্র হৃৎপিন্ডের রোগ, renal failure, থ্যালাসেমিয়া, অঙ্গ প্রতিস্থাপন, ঘোরতর গাইনোকোলজিক্যাল ডিস-অর্ডার।

একটি শূন্য পদের জন্য একাধিক আবেদন জমা পড়লে কিভাবে বিবেচনা করা হবে?

নিয়ম অনুসারে পাওয়া নম্বরের ভিত্তিতে। যদি একাধিক জনের প্রাপ্ত নম্বর সমান হয় তবে আগে যিনি আবেদন করেছেন তাকেই প্রাধ্যান্য দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন –

প্রগতি স্কলারশিপ ২০২১ | Pragati Scholarship 2021 in Bengali

নবান্ন স্কলারশিপ ২০২১ বা উত্তরকন্যা স্কলারশিপ ২০২১

Leave a Reply

Your email address will not be published.