প্রসূতিদের জন্য চালু হল নয়া প্রকল্প ‘প্রসব সাথী’ – প্রসবের সময় থাকতে পারবেন প্রসূতির আত্মীয়

প্রসব সাথী প্রকল্প কি, প্রসব সাথীদের কাজ, কারা প্রসব সাথী হতে পারবেন ইত্যাদি।

প্রসব সাথী (Prasab Sathi) প্রকল্প হল পশ্চিমবঙ্গের প্রসূতি মায়েদের জন্য রাজ্য সরকারের এক অভিনব মানবিক উদ্যোগ।এবার থেকে প্রসবের সময় প্রসূতির সঙ্গে থাকতে পারবেন তাঁর মা কিংবা স্বামী।

এই মর্মে নয়া নির্দেশিকা জারি করল রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর (WB Health Department)। 

কারা প্রসব সাথী হতে পারবেন?

প্রসূতির মা বা মাতৃস্থানীয়া কেউ কিংবা স্বামী প্রসব সাথী হতে পারবেন।

প্রসবের সময় শারীরিক দেখভালের মতোই মানসিক জোর প্রয়োজন হয়। মা বা মাতৃস্থানীয়া কেউ কিংবা স্বামীকে পাশে চান অন্ত্বঃসত্তারা। এতদিন লেবার রুমে চিকিৎসক, নার্সরা ছাড়া কাউকে সঙ্গে পেতেন না প্রসূতিরা।

রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর জানিয়েছে, প্রসব বেদনা নিয়ে হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পর থেকে এমনকী, প্রসবের সময় লেবার রুমেও উপস্থিত থাকবেন অন্ত্বঃসত্তার আত্মীয়। মা কিংবা মাতৃস্থানীয়া কোনও একজন থাকতে পারবেন সঙ্গে। তবে প্রসূতি যদি চান লেবার রুমে তাঁর স্বামীও থাকতে পারবেন।

কোথায় কোথায় প্রসব সাথীর সুবিধা পাওয়া যাবে?

এতদিন বিদেশে এবং রাজ্যে কিছু বেসরকারি হাসপাতালে প্রসব সাথীর সুবিধা মিলত। এবার থেকে রাজ্য সরকারের হাসপাতাল, মাতৃসদন এমনকী, জেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতেও এই সুবিধা মিলবে।

কোন্‌ কোন্‌ ক্ষেত্রে এই সুবিধা পাওয়া যাবে?

শুধুমাত্র ‘নরম্যাল ডেলিভারি’র সময় এই সুবিধা পাওয়া যাবে। তবে সিজার পদ্ধতি প্রসবের ক্ষেত্রে এই সুবিধা মিলবে না।

প্রসব সাথীদের কাজ

১) ‘নরম্যাল ডেলিভারি’র সময় প্রসূতিকে বিশেষ একটি ‘পজিশনে’ রাখতে হয়, যাতে স্বাভাবিকভাবে প্রসব করতে পারেন প্রসূতি। এর জন্য প্রসূতিকে ধরে রাখার প্রয়োজন পড়ে। প্রসব সাথী লেবার রুমে সেই কাজটি করবেন।

২) প্রসবের আগে অন্ত্বঃসত্তাকে হাঁটানোর প্রয়োজন হয়। সেই সময় তাঁকে সাহায্য করবেন ‘প্রসব সাথী’। 

৩) প্রসবের পরও সদ্যোজাত ও মায়ের খেয়াল রাখবেন ওই প্রসব সাথী। তাঁদের শারীরিক কোনও অসুবিধা হলে তা দ্রুত চিকিৎসক ও নার্সদের জানাতে পারবেন তিনি।

স্বাস্থ্যভবন সূত্রে খবর, প্রসব সাথীদের বিশেষ ব্যাজ বা কার্ড দেওয়া হবে। যা দেখিয়ে তিনি নির্দিষ্ট ওয়ার্ডে বা হাসপাতালে ঢুকতে হবে। প্রসূতির সঙ্গেই থাকবেন তিনি। যেহেতু তাঁরা নতুন মা এবং সদ্যোজাতর দেখভাল করবে তাই প্রসব সাথীদের পরিষ্কার -পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকেরা। বর্তমানে কোভিডবিধি অক্ষরে অক্ষরে পালনের কথাও মনে করিয়ে দিচ্ছেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

তথ্যসূত্র – https://www.sangbadpratidin.in/kolkata/new-rules-of-wb-health-department-says-mother-or-husband-can-be-stay-with-pregnant-women-in-labour-room/

Leave a Reply

Your email address will not be published.